বুধবার, ১২ আগস্ট, ২০১৫

দেশের অষ্টম টেস্ট ভেন্যুর মর্যাদা পাচ্ছে সিলেট স্টেডিয়াম

টেস্ট ভেন্যু হিসেবে অভিষেকের অপেক্ষায় রয়েছে সিলেট বিভাগীয় স্টেডিয়াম। জানুয়ারিতে জিম্বাবুয়ের বিপক্ষে ম্যাচ দিয়ে টেস্ট ক্রিকেটের যাত্রা শুরু হবে নয়নাভিরাম দৃশ্য এবং পাহাড় ঘেরা ও চা বাগান বেষ্টিত এই স্টেডিয়ামের।
বাংলাদেশ দল ২০১৬ সালের জানুয়ারিতে জিম্বাবুয়ের বিপক্ষে হোম সিরিজ খেলবে । এই সিরিজের প্রথম টেস্টটি অনুষ্ঠিত হবে সিলেটে।
দেশের অষ্টম টেস্ট ভেন্যু হিসেবে আত্মপ্রকাশ করতে যাচ্ছে সিলেট বিভাগীয় স্টেডিয়াম। সিরিজের প্রস্তাবিত সময়সূচিও তৈরি করেছে বিসিবি।
সিলেট টেস্ট ম্যাচ হওয়ার বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন বিসিবির পরিচালক শফিউল আলম চৌধুরী নাদেল। সিলেটে টেস্ট ম্যাচ আয়োজনের বিষয়ে মঙ্গলবার তিনি বলেছেন, ‘ সিলেট হচ্ছে একটি টেস্ট এই ব্যাপারে কোনো সন্দেহ নেই। এখন যে সূচিটা আছে সেটা প্রস্তাবিত। তবে এখান থেকে পরিবর্তন হওয়ার সুযোগ খুব একটা নেই।’
সিলেটের মাঠ এক মাসের মধ্যে পুরো প্রস্তুত হয়ে যাবে বলে জানান বিসিবির এই পরিচালক। এছাড়া স্টেডিয়ামের গ্যালারির ধারণ ক্ষমতা বাড়ানো হচ্ছে। এ প্রসঙ্গে নাদেল বলেছেন, ‘ আমরা তো অনেক কাজ করেছি। পিচসহ আগামী এক মাসের মধ্যেই পুরো মাঠটি খেলার উপযোগী হয়ে ওঠবে। আমরা গ্যালারি বর্ধিত করতেছি। এগুলো শেষ হতে হয়তো ৩ - ৪ মাস লাগবে। মাঠ তৈরি; জানুয়ারিতে এখানে টেস্ট হবে। ড্রেনেজ সিস্টেমের কাজও শেষ। ’
আগামী নভেম্বরেই মাঠ পরিদর্শনে আসবে আইসিসির পরিদর্শক দল। তাদের রিপোর্টের উপরই সিলেট স্টেডিয়াম পাবে টেস্ট ভেন্যুর মর্যাদা।
২০০৭ সালে নির্মিত এই স্টেডিয়ামের আন্তর্জাতিক ক্রিকেটাঙ্গনে অভিষেক হয়েছে ২০১৪ টোয়েন্টি২০ বিশ্বকাপে। ৬টি টোয়েন্টি২০ ম্যাচ হয়েছে এই মাঠে। যদিও একদিনের কোনো ম্যাচ হয়নি এখনো। অবশ্য ইংল্যান্ড লায়ন্স, ইংল্যান্ড অনূর্ধ্ব- ১৯ ও নেপাল অনূর্ধ্ব - ১৯ দল খেলে গেছে এই ভেন্যুতে এসে।
উল্লেখ্য, জিম্বাবুয়ের বিপক্ষে ২ টেস্ট, ৩ ওয়ানডে ও ৩টি টোয়েন্টি২০ ম্যাচ খেলবে বাংলাদেশ।

সুরমা রিপোর্ট

একটি মন্তব্য পোস্ট করুন