শনিবার, ১৫ আগস্ট, ২০১৫

অস্ট্রেলিয়ায় যেতে পারেন মুশফিক

গত মে মাসের কথা। বাংলাদেশ - পাকিস্তান টেস্ট সিরিজের প্রথম টেস্ট। দ্বিতীয় দিন। আচমকা হাতের আঙ্গুলে আঘাত পান বাংলাদেশের টেস্ট অধিনায়ক মুশফিকুর রহিম। অসহ্য যন্ত্রনা নিয়ে মাঠ ছাড়তে হয় তাঁকে। সেই থেকে তাঁর দু:সময়ের শুরু। ব্যাট হাতে বাংলাদেশ দলের 'নির্ভরতার প্রতীক' আউট অফ ফর্ম। উইকেটরক্ষকের পদও অনিশ্চিত। আঙ্গুলের ইনজুরি না সারায় পরবর্তী সিরিজে ভারতের বিপক্ষে টেস্টে লিটন দাসের ওপর ছেড়ে দিতে হয় উইকেটরক্ষনের দায়িত্ব। অবশ্য ওয়ানডে সিরিজে আবারও দাঁড়াতে শুরু করেন উইকেটের পেছনে। কিন্তু আঙ্গুলের যন্ত্রনা তখনো সারেনি। ফলে উইকেট রক্ষক হিসেবে পূর্বের ধার অনেকটাই কমে যায়।
এরপর থেকে কখনো তিনি, আবার কখনো লিটন দাস পালন করছে দায়িত্বটি। কারণ নিজেকে পুরোপুরি ফিট হিসেবে প্রমাণ করতে মুশফিক ব্যর্থ। ওদিকে ব্যাটও আর হাসছে না আগের মত। ক্রিকেটবোদ্ধারা রায় দিয়ে দিয়েছেন উইকেটরক্ষণের দায়িত্ব লিটনের ওপর ছেড়ে দিয়ে শুধু ব্যাটিংয়ের প্রতি মনোনিবেশ করার।
কিন্তু মুশফিকও সাফ জানিয়ে দিয়েছেন, উইকেটরক্ষন তাঁর প্যাশন। ব্যাটিংয়ের চেয়েও এটা বেশি উপভোগ করেন তিনি। তাই এটা ছেড়ে দেয়া তাঁর পক্ষে অসম্ভব। কিন্তু উইকেটরক্ষক হিসেবে নিজেকে টিকিয়ে রাখতে হলে মুশফিকের আগে দরকার আঙ্গুলটাকে ঠিক করা।
সে ব্যাপারেই এবার উদ্যোগী হয়েছে স্বয়ং বাংলাদেশ ক্রিকেট বোর্ড। বোর্ডের মেডিকেল টিম মুশফিকের আঙ্গুলে টেস্টের রিপোর্ট পাঠিয়েছে গ্রেগ হয় অফ মেলবোর্ন অর্থোপেডিক গ্রুপে। সেখানকার সার্জনরা যদি মনে করেন মুশফিকের আরও ভাল চিকিৎসা প্রয়োজন, তাহলে অস্ট্রেলিয়া এ দেশে আসার আগে মুশফিককেই পাড়ি জমাতে হবে অস্ট্রেলিয়ায়।

একটি মন্তব্য পোস্ট করুন